বিপ্লব হবে

প্রকাশিত: মে ২৫, ২০১৬

‘বিপ্লব হবে জনতার’ হুশিয়ার এলো ঐ কালস্রোত ভেসে

সাবধান শাসনে শোষক, রক্তচোষক !

ক্ষতবিক্ষত পিঠ এবার হবে ঢাল

যারা গড়েছে ভূতল, বহুতল; এক করেছে আকাশ পাতাল;

কড়া হাতে ছুটে চলে আলোর মশাল,

ছুটে জনতা সত্যের নেশে ।

প্যাডেলে প্যাডেলে দুর্বার অথচ সংকীর্ণ শব্দ;

অবাধ্য প্রতিরোধ - শোষিতের গুঞ্জন

দানবটা ভয়ে ভীত, স্তব্ধ ।

সরণিতে রমণী, আঁখিতে তার ধ্বংসের আগাম চিত্র -

এ সংগ্রামে জেগেছে, জন্মেছে, জন্মাবে শত শত ইলামিত্র ।

প্রাচীর ভেঙ্গে দাও,আবরণে মুক্ত হোক ধরা-

জয় হোক শাশ্বত সত্যের, ছুঁড়ে পুরাতন-জরা ।


‘জয় হবে ন্যায়ের’ অভিশাপ শুনি কলে পিষ্ট,

শ্রমে ক্লিষ্ট হাড়গোনা শ্রমিকের, দিনমজুরের

ধ্বংস ধ্বনিত শেলবিদ্ধ বুকে ।

কষে লাথি হবে শোষক, পুঁজিবাদের গদিতে;

কর্পোরেটের বৃত্ত ভেঙ্গে হবে খান খান !

আগাম চিত্র দেখি শরীরভেজা রক্তঘামের স্রোতে ।

সয়েছি অনেক, রয়েছি নিশ্চুপ, হয়েছি নব্য দাস -

চাবুকে পঁচন ধরেছে; এবার সয় পিঠে বিরুদ্ধ উল্লাস !

বদলে যাবে চাবুকের হাত, বদলাবে চাবুক ।

চাবুক পিটিয়ে এবার ওরা শিখাবে সভ্যতা

যারা গড়েছিলো বস্তু পাথার, এবার সে লগ্ন আসুক !


না, এসেছে সে লগ্ন, জেগেছে জনতা গোপণে

মৃত্তিকা ভেদ করে উঠলো বলে বিপ্লবের বীজ রোপণে ।

জেগে ওঠো প্রাণ, তুমি অক্ষয়, তুমি অব্যয় !

‘প্রাণের স্পন্দনে প্রাণ জাগুক’ সময়ের শাশ্বত প্রত্যয় ।