হে মুসলিম, বিবেক দিয়ে চিন্তা করুন

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ০৩, ২০২০

হে মুসলিম, বিবেক দিয়ে চিন্তা করুন
ইয়েমেনের মানুষগুলো চতুষ্পদ প্রাণিতে পরিণত হয়েছে, যারা লতাপাতা খেয়ে কোনো রকম বেঁচে আছে।

সিরিয়ানদের আজ কোনো জাত্যবোধ, মানুষ পরিচয় নেই, দেশে-বিদেশে যারা সর্বস্ব বিলিয়ে অন্যের অনুগ্রহ নিয়ে বেঁচে থাকছে।

“রোহিঙ্গা ” আজ একটি গালিবাচক শব্দ, যে শব্দটা খোদ মুসলিমরাই ব্যবহার করছে।

ফিলিস্তিন এক জ্যান্ত লাশের ভাগাড়, যেখানে জ্যান্ত লাশগুলোর মুখে খাবার দিতেও মার্কিনী নিষেধাজ্ঞা।

বসনিয়ার নারীদের কাছে হেযাব পড়া বিলাসিতা ছাড়া কিছুই নয়, কারণ লক্ষ লক্ষ ধর্ষিতার কোলে আজ জারয সন্তান।

ইয়েমেনীদের প্রশ্ন করে দেখুন - খাওয়ার আগে নিমক খাওয়া সুন্নাত না নফল?

সিরিয়ানদের প্রশ্ন করে দেখুন - দেশপ্রেম ঈমানের অঙ্গ। হাদিসটা জাল না রিজাল?

রোহিঙ্গাদের প্রশ্ন করে দেখুন - দাঁড়ি রাখা সুন্নত, ওয়াজিব নাকি ফরদ?

বসনিয়ান নারীদের প্রশ্ন করে দেখুন - হাত-মুখ খোলা রেখে হিযাব করা জায়েজ নাকি নাজায়েয?

আপনার এ প্রশ্ন আজ তাদের কাছে অর্থহীন।

কারণ, তারা জাগরণে-নিদ্রায় তাদের রবের কাছে শুধুই মুক্তির প্রার্থণা করে । তারা শুধুই আজ মুক্তি চায়।

না খেতে পেরে হাড়কঙ্কালসার অবুঝ শিশুটি মরার আগে তার মাকে প্রশ্ন করে - আমি কি জান্নাতে গেলে অনেক খাবার খেতে পাবো? মা জানে জান্নাতে সব খাবার রয়েছে, তবুও কি সে মা তার শিশুর প্রশ্নের উত্তর দিতে পেরেছিলো?

আজ ভল্যুম ভল্যুম কোরআন-হাদিসের তাফসীর, ফতোয়ার গ্রন্থগুলি রাখার জায়গা শরণার্থী শিবিরে নেই।

কি দুর্ভাগ্য মুসলিম জাতিটির! সমগ্র মানবজাতিকে শান্তিতে, সমৃদ্ধিতে রাখা যাদের গুরুদায়িত্ব ছিলো, তারাই কিনা আজ অস্তিত্বের প্রশ্নে সম্মুখীন!

আর কত দুর্ভাগ্য নেমে এলে আমরা বুঝবো!