উই ডিজার্ভ 'হিরো আলম' !

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ০২, ২০২০

অভিনয়ের পর উনি এবার জাতিকে এক উচ্চমার্গীয় গান উপহার দিয়েছেন। কি কন্ঠ, কি লিরিক আর কি সুর! শ্রোতাগণও নাকি তাঁর গান শুনে অবাক এবং ভীষণ প্রশংসা কুড়াচ্ছেন! উৎসাহ পেয়ে ভবিষ্যতে তিনি গানের অ্যালবাম উপহার দিবেন এবং সাথে থাকছে উনার করা মডেল। 

উই ডিজার্ভ 'হিরো আলম' !

হ্যা, ব্যক্তি স্বাধীনতা সবারই আছে। উনার প্রচেষ্টাকে সাধুবাদ জানাই। কিন্তু তার মানে এই না, উনার প্রচেষ্টা যখন অপচেষ্টাতে পরিণত হয়, সেই অপচেষ্টাকে গ্রহণ করে নিতে হবে, প্রমোট করতে হবে। 

একজনের প্রচুর ইচ্ছে হলো কবিরাজ হবেন, অসহায়-দরিদ্র মানুষের চিকিৎসা সেবা করবেন। সেজন্য কোনো ফর্মূলা ছাড়াই, চিকিৎসাজ্ঞান ছাড়াই বিভিন্ন গাছগাছালি দিয়ে ওষুধ বানালো এবং সেই ওষুধ কার্যকরিতো নয়-ই, মারাত্মক ক্ষতিকরও বটে। 

আপনি কি তার এই চিকিৎসা গ্রহণ করবেন, তার এই চিকিৎসাকে প্রমোটা করাতো দূরের কথা! অথচ আমরা এই ভুলটাই করে যাচ্ছি।

কবিরাজ হওয়া ও মানবসেবা করা ইচ্ছাপোষণ এবং পরিশ্রম - সবগুলোই প্রশংসার দাবিদার কিন্তু তার অপচেষ্টা এবং সেই অপচেষ্টায় ভয়ানক ক্ষতিকর চিকিৎসা, ওষুধ কখনোই গ্রহণযোগ্য নয়।

জি, জনাব আলমের কথাই বলেছিলাম। যিনি 'হিরো আলম' নামেই সুপরিচিত। যিনি অভিনয় না জেনেও অভিনেতা হিসেবে উইকিপিডিয়াসহ স্বনামধন্য পত্রিকাগুলোতে জায়গা করে নিয়েছেন। এই ব্যক্তিকে জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে প্রমোট করেছে আমাদের দেশের এই স্বনামধন্য মিডিয়াগুলো, সাথে কিছু কলামিস্টের সুপারিশনামা। 

সোশ্যাল মিডিয়াতে নেগেটিভ মার্কেটিং এই আলমকে রাতারাতি স্টার বানিয়েছে। এটা হতো না, যদি প্রতিষ্ঠিত পত্রিকাগুলো তাকে নিয়ে নিউজ না করতো, তাকে না প্রমোট করতো। 

আমরাই তাকে ভাইরাল করেছি, আমরাই তাকে হিরো বানিয়েছি, আমরাই তাকে এখন সিঙ্গার বানাতে যাচ্ছি, হয়তো ভবিষ্যতে ডিরেক্টর বা অন্যকিছু।  সত্যিকার্থে - উই ডিজার্ভ হিম। 

বাংলাদেশে আনাচে কানাচে কত যোগ্য ও মেধাবী রয়েছে তারা কিন্তু উঠে আসতে পারছে না। আমাদের মিডিয়াগুলো তাদেরকে প্রমোট করছে না, আমরা জায়গা করে দিচ্ছি অযোগ্যদের। অপচেষ্টা ও প্রচেষ্টার মধ্যে পার্থক্যটা আমরা বুঝি না। যে অভিনয় পারে, তার প্রচেষ্টাকে গ্রহণ করা উচিত, তাকে প্রমোট করা উচিত। কিন্তু যে যেটা পারেই না, তার এই প্রচেষ্টা কেবলই অপচেষ্টা। এই অপচেষ্টাকে প্রমোট করার কোনো মানেই হয় না। 

শুধু সিম্প্যাথি দিয়ে যেমন চিকিৎসক হওয়া যায় না, হওয়া উচিত না, তেমনি অভিনেতা, গায়ক হওয়া যায় না এবং সেটাকে প্রমোট করার মানেই আমাদের শিল্প-সংস্কৃতিকে অপমান করা, আত্মবিধ্বংসী সিদ্ধান্ত নেয়া।