চারদিকে দাউ দাউ আগুন, নেভানোর লোক কই?

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৩০, ২০২০

যারা ফায়ার সার্ভিসের চাকরি করে, ফায়ার এলার্ম বাজার সাথে সাথে তারা যত দ্রুত সম্ভব প্রস্তুত হয়ে তাদের অগ্নিনির্বাপক যন্ত্রপাতি নিয়ে আগুন নেভাতে ছুটে যায়। যেহেতু তাদের কাছে অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র আছে এবং তাদেরকে এ বিষয়ে প্রশিক্ষিত করা হয়েছে কাজেই আগুন নেভানোর সর্বপ্রথম দায়িত্ব তাদেরই।

চারদিকে দাউ দাউ আগুন, নেভানোর লোক কই
তবে কোনো কারণে যদি ফায়ার সার্ভিসের লোক না আসে তবে কি সাধারন মানুষ আগুন নেভাতে ছুটে যাবে না? আর যদি কেউ ছুটে যাই তবে কি তাকে এই বলে ফিরিয়ে দিবেন যে "তোমার তো আগুন নেভানোর কোন প্রশিক্ষণই নাই, তোমার কাছে তো অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র নাই"?


সারা পৃথিবীতে আজ অশান্তির আগুন দাউ দাউ করে জ্বলছে, প্রত্যেকটা জনপদে মানুষগুলো বাঁচার জন্য হাহাকার করছে, তারা একদল মানুষের জন্য অপেক্ষা করছে যারা তাদের কাছে মুক্তির বার্তা নিয়ে যাবে এবং অশান্তির আগুন থেকে বাঁচাবে। যুগে যুগে এই আগুন নিভিয়েছে নবী-রাসূলগণ, মহামানবগণ কারণ তাদের কাছে মুক্তির বার্তা ছিল, সঠিক আদর্শ ছিল অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র ছিল। আজ যারা নবীর ওয়ারিশ দাবিদার, আলেম দাবিদার সর্বপ্রথম তাদের দায়িত্ব এ আগুন নেভাতে মানুষের দ্বারে দ্বারে ছুটে যাওয়া, মানুষের মুক্তির জন্য নিজেদের জীবন বাজি রাখা।

কিন্তু আমরা দেখছি মানবজাতির এই দুর্দশাতে তাদের কোন মাথা ব্যথা নেই, মানুষের মুক্তি নিয়ে তাদের কোনো চিন্তা নেই, তারা আছে কেবল কিছু স্বার্থের বিনিময় ধর্মটাকে বিক্রি করার কাজে। আমরা যখন সাধারণ মানুষ দাঁড়িয়েছি আমাদের কাছে থাকা বালতি, বদনা, জগ নিয়ে আগুন নেভানোর প্রচেষ্টায় তখন তারা বলছে আপনারা তো প্রশিক্ষিত না, আপনাদের কাছে তো অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র নেই অর্থাৎ আপনারা তো মাদ্রাসায় পড়েন নি, আপনারা তো আলেম নন, আপনাদের দাড়ি কই, টুপী কই ইত্যাদি। এক্ষেত্রে আমাদের পরিষ্কার বক্তব্য হচ্ছে- শত শত বৎসর আপনারা ঘরে বসে আছেন, এই আগুনকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ার সুযোগ দিয়েছেন, কিন্তু আমরা নিষ্ক্রিয় দর্শক হয়ে ঘরে বসে থাকতে পারিনা। মানুষের মুক্তির জন্য আমরা একদল জানবাজ মোজাহেদ দাঁড়িয়েছি, আমাদের নিয়ত সহিহ, আমাদের মনবল আকাশচুম্বী, আমরা একমাত্র আল্লাহর সাহায্য প্রার্থী, আমাদের সাথে আছেন আল্লাহ মনোনীত এমাম, আমাদের হৃদয়ে দৃঢ় প্রত্যয়, সংকল্পের দৃঢ়তা। কারো কোন বাঁকা কথা, তীর্যক মন্তব্য, গালাগালি, প্রতিবন্ধকতা আমাদের দমিয়ে রাখতে পারবে না। হয় আমরা বিজয়ী হব না হয় আল্লাহর রাস্তায় শহীদ হয়ে যাব।